Header Ads

সবচেয়ে জনপ্রিয় ৫টি ইসলামিক টিভি সিরিজ যা বাংলায় প্রচারিত হয়েছে

টিভি সিরিজ, বর্তমানে বিশ্বব্যাপী ব্যাপক জনপ্রিয় একটি টেলিভিশন চলচ্চিত্র। প্রথম দিকে শুধুমাত্র ইংরেজি ভাষায় টিভি সিরিজ তৈরি করা হলেও বর্তমানে বিশ্বব্যাপী ইংরেজি, হিন্দী, ফার্সি, বাংলার পাশাপাশি ইসলামিক ভাবধারার অনেক টিভি সিরিজ দেখতে পাওয়া যায়। বিশেষ করে ইরান ও তুরস্কের তৈরি বেশ কিছু ইসলামিক টিভি সিরিজ বিশ্বব্যাপী সুনাম কুড়িয়েছে। আজকের পর্বে আমি আপনাদের দেখাবো ইসলামী ভাবধারায় তৈরি বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় ৫টি টিভি সিরিজ এবং তাদের পেছনের গল্প।

৫. দ্যা মেন অব এনজেলুস:

দ্যা মেন অব এনজেলুস ফার্সি ভাষার একটি অত্যন্ত জনপ্রিয় টিভি সিরিজ। ইরানের তৈরি এই টিভি সিরিজটি টিভি পর্দায় মুক্তি পায় ১৯৯৭ সালে। পবিত্র আল কুরআনের আসহাবে কাহাফ নামের সত্য একটি কাহিনী অবলম্বনে এই সিরিজটি নির্মিত হয়েছে। ২৫০ সালের দিকে তৎকালিন রোমান সম্রাট ডিসিয়াসের শাসনামলে ঈসা নবীর উপর ইমান আনা এবং তার ধর্ম প্রচারের শাস্তি হিসেবে সম্রাট কয়েকজনকে শাস্তির মুখোমুখি করানোর চেষ্টা করলে তারা মোট সাত জন একটি কুকুর সহ পালিয়ে এফিসাসের গুহায় আশ্রয় গ্রহণ করে এবং তারা সেখানে ঘুমিয়ে পরে। ৩০৯ বছর পরে মহান আল্লাহর হুকুমে তাদের ঘুম ভাঙ্গে এবং তারা পুনরায় ফিরে আসে। আসহাবে কাহাফের গল্প নিয়ে রচিত এই টিভি সিরিজটি পরিচালনা করেছেন ফারাজুল্লাহ সালাহশুর। অত্যন্ত জনপ্রিয় এই সিরিজে অভিনয় করেছেন জাফর দেহঘান, হোসাইন এরি সহ ইরানের অনেক প্রসিদ্ধ অভিনেতা। বাংলাদেশের এস এ টিভি ২০১৭ সালে এই সিরিজটি বাংলায় ডাবিং করে আসহাবে কাহাফ নামে প্রচার করেছিল।

৪. মুহতেসেম ইউযিয়েল:

মুহতেসেম ইউযিয়েল তুরস্কের তৈরি একটি জনপ্রিয় টিভি সিরিজ। ২০১১ সাল থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত চলা এই টিভি সিরিজটি নির্মিত হয়েছে উসমানীয় সাম্রাজ্যের সবচেয়ে দীর্ঘ সময়কালব্যাপী রাজত্ব বিস্তারকারী সম্রাট প্রথম সুলাইমান এবং তার প্রিয়তম স্ত্রী হুররেম সুলতানের জীবনগাঁথার উপর ভিত্তি করে, যিনি সুলায়মানের কৃতদাসী হয়েও পরবর্তীকালে তার প্রধান স্ত্রী হিসেবে সম্মানিত হওয়ার সৌভাগ্য লাভ করেন তুর্কি ভাষায় রচিত এই টিভি সিরিজটি পরিচালনা করেছেন ইয়াগমুর তাইলান, দারুল তাইলান, মারত বাইকাল, এবং ইয়াগিজ আকাইদিন। ৪ সিজনে বিভক্ত এই সিরিজটির মোট পর্ব সংখ্যা ১৩৯ এবং প্রতিটি পর্ব ৯০ থেকে ১২৬ মিনিট। 
অত্যন্ত জনপ্রিয় এই টিভি সিরিজটি বিশ্বের অনেক দেশে তাদের ভাষায় ডাবিং করা হয়েছে। বর্তমানের অনেক ঐতিহাসিকগন এই টিভি সিরিজটি পরীক্ষা করে তাতে ৭০ হাজারের বেশি ঐতিহাসিক ভুল পেয়েছেন। তুরস্কের বর্তমান প্রেসিডেন্ট রিসেপ তায়েপ এরদোয়ান এই সিরিজটিকে সমালোচনা করে বলেছেন এখানে ইসলামকে জঘন্য ও অশ্লিল হিসেবে তুলে ধরা হয়েছে। সুলতান সুলেমানের জীবনকে পরিপূর্ণভাবে উল্টো ভাবে প্রদর্শন করা হয়েছে এবং তিনি এই সিরিজটি মুসলিম যুবকদের দেখতে নিষেধ করেছেন। বাংলাদেশের দীপ্ত টিভি ২০১৫ সালে সুলতান সুলেমান নামে সিরিজটি বাংলা ডাবিং করে প্রচার করেছিল। 

৩. মুখতার নামেহ:

মুখতার নামেহ নামক টিভি সিরিজটি ইরানের তৈরি একটি ঐতিহাসিক কাহিনী নির্ভর টিভি সিরিজ। কারবালা প্রান্তরে ইয়াজিদ বাহিনীর হাতে ইমাম হোসেন রা: এর শাহাদাত বরণ এবং পরবর্তী সময়ে কুফার রাজনৈতিক অবস্থা ও আমির মুখতার সাকাফি কর্তৃক ইমাম হোসেনের হত্যার প্রতিশোধ গ্রহণের কাহিনী দেখানো হয়েছে এই সিরিজে। ফার্সি ভাষায় রচিত এই টিভি সিরিজটির পরিচালক দাভুদ মিরবাঘেরি এবং সিরিজটির মোট পর্ব সংখ্যা ৪০টি যার প্রতিটি পর্বের দৈর্ঘ ৬০ মিনিট। কারবালা প্রান্তরে ইমাম হোসেন শহীদ হওয়ার পর মুখতার সাকাফি সেই হত্যার প্রতিশোধ গ্রহণের জন্য যে রাজনৈতিক কলাকৌশল গ্রহণ করেছিল এবং পরিশেষে ইয়াজিদ ও সীমারতে হত্যা করে ইমাম হত্যার যে প্রতিশোধ নিয়েছিল সেটা খুবই সুন্দরভাবে তুলে ধরা হয়েছে এই সিরিজে। এই সিরিজে মুখতার সাকাফি চরিত্রে অভিনয় করেছেন ইরানের বিখ্যাত অভিনেতা ফারিবর্য আরাবিনা। বাংলাদেশের এস এ টিভি ২০১৮ সালে কারবালা কাহিনী নামে এই টিভি সিরিজটি বাংলায় ডাবিং করে প্রচার করেছিল। 

২. দিরিলিস: আরতুগ্রুল:

দিরিলিস আরতুগ্রুল নামের টিভি সিরিজটি তুরস্কের অত্যাধিক জনপ্রিয় একটি টিভি সিরিজওঘুজ তুর্কিদের ইতিহাসের উপর ভিত্তি করে এই সিরিজের কাহিনী রচিত হয়েছে। ১৩ শতাব্দীর মধ্যভাগে উসমানীয় সাম্রাজ্যের প্রতিষ্ঠাতা প্রথম উসমানের পিতা এরতুগরুল গাজীর জীবনকে তুলে ধরা হয়েছে এই সিরিজে উসমানের জীবদ্দশায় তার পরিবারের প্রাধান্য অত্যন্ত সংক্ষিপ্ত হলেও তার মৃত্যুর পর পরবর্তী ছয় শতাব্দীর জন্য উসমানীয় রাজবংশের অধীনে কিভাবে বিশ্বময় সাম্রাজ্য গড়ে তোলার পথকে প্রশস্ত করেছিল সেটাই তুলে ধরা হয়েছে এই টিভি সিরিজে 
৫ সিজনে বিভক্ত এই সিরিজটির মোট পর্ব সংখ্যা ১৫০টি এবং প্রতিটি পর্বের দৈঘ্য ১২৫ মিনিট। তুর্কি ভাষায় রচিত অধিক জনপ্রিয় এই সিরিজটির রচয়িতা যেয়নেপ আলাসিয়া। ২০১৪ সাল থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত তুরস্কে প্রচার হওয়ার পর দিরিলিস আরতুগ্রুল বিশ্বের অনেক দেশে তাদের ভাষায় ডাবিং হয়ে প্রচারিত হয়েছে।  এই সিরিজে আরতগ্রুলের চরিত্রে অভিনয় করেছেন তুরস্কের বিখ্যাত অভিনেতা আলতান দোজায়তান। ২০১৭ সালে বাংলাদেশের মাছরাঙ্গা টেলিভিশন দিরিলিস আরতগ্রুল নামে সিরিজটির কয়েকটি সিজন বাংলায় ডাবিং করে প্রচার করে।

১. ইউসুফ ই পয়ম্বর:

ইউসুফ ই পয়ম্বর বিশ্বের সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় ইসলামিক টিভিসিরিজ। হযরত ইউসুফ আ: এর জীবন কাহিনী নিয়ে রচিত ইরানের তৈরিকৃত এই সিরিজটি সমগ্র মধ্যপ্রাচ্যে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছিল। ইউসুফ আ: এর জন্ম, তার কেনানে বেড়ে ওঠা, ভাইদের সাথে তার দ্বন্দ্ব এবং তাকে হত্যার চেষ্টা সুন্দরভাবে তুলে ধরা হয়েছে এই সিরিজে। পবিত্র আল কুরআনের সূরা ইউসুফের গল্প থেকে হুবহু নকল করা হয়েছে এই টিভি সিরিজটি। ইউসুফের মিশর গমন, সেখানে বেড়ে ওঠা, জুলেখার প্রেম প্রত্যাখ্যান করা, ১০ বছর জেল খাটা এবং পরিশেষ মিশরের আমীর হওয়ার সকল কাহিনী সুন্দরভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে এই সিরিয়ালে। বহুল আলোচিত এই টিভি সিরিজটির পরিচালক ফারাজুল্লাহ সালাহশুর। ২০০৮ সালে প্রথম প্রচারিত হওয়া এই সিরিজটির মোট পর্ব সংখ্যা ৪৫টি, যার প্রতিটি পর্বের দৈর্ঘ প্রায় ৫০-৬০ মিনিট। আর্ন্তজাতিকভাবে এই সিরিজটির IMDB রেটিং ৭.২ এবং এর প্রতিটি পর্বে মুসলমানদের বিজয় সুন্দরভাবে তুলে ধরা হয়েছে। এই টিভি সিরিজে নবী ইউসুফের চরিত্রে অভিনয় করেছেন মোস্তফা জামানী এবং জুলেখার চরিত্রে অভিনয় করেছেন কাতায়ুন রিয়াহি। ইউসুফ ই পয়ম্বর টিভি সিরিজটি ইতোমধ্যে বিশ্বের প্রায় সকল মুসলিম দেশে তাদের ভাষায় ডাবিং করে প্রচারিত হয়েছে। বাংলাদেশের এসএ টিভি ২০১৬ সালে ইউসুফ জুলেখা নামে এই সিরিজটি বাংলায় ডাবিং করে প্রচার করেছিল।

কোন মন্তব্য নেই

Blogger দ্বারা পরিচালিত.