Header Ads

বোকামির এক জীবন্ত ক্ষত ট্রয়ের ঘোড়ার ইতিকথা

যুদ্ধ, শব্দটি বেশ ভয়াবহ। যা শুনলে সবাই আতংকিত হয়ে ওঠে। প্রত্যেকটি যুদ্ধের দুটি অংশ থাকে। একটি জয়ের অপরটি পরাজয়ের। যারা যুদ্ধে জয়ী হয় অবশ্যই তারা বিপক্ষ দল থেকে শক্তিতে অনেক এগিয়ে থাকে। তবে অনেক সময় শক্তির চেয়ে বুদ্ধি বেশী দরকার হয় যুদ্ধ জয়ের জন্য। নির্বুদ্ধিতার কারনে পৃথিবীর ইতিহাসে অনেক শক্তিশালী জাতি হারিয়ে গেছে অতলে আবার বুদ্ধির জোরে অনেক ক্ষুদ্র শক্তি হয়েছে বিজয়ী। যেমন এমনই একটি বুদ্ধিদীপ্ত জয় ছিল ট্রয় যুদ্ধ।  যে যুদ্ধে একটুখানি বুদ্ধি পরাজয়ের কিনারা থেকে জয়ী করেছিল গ্রিকদের।

প্রাচীন গ্রিক এবং ট্রয় (বর্তমানে তুরস্কে অবস্থিত) এর অধিবাসীদের মধ্যে খ্রিষ্টপূর্ব ১১৮৪ সালে ট্রয় নগরে একটি ভয়াবহ যুদ্ধ সংঘটিত হয়। যার অন্যতম কারন ছিল ট্রয়ের রাজপুত্র প্যারিস স্পার্টার রাজা মেনিলাসের সুন্দরী স্ত্রী হেলেনকে অপহরণ করে নিজ বাসভুমিতে নিয়ে যান। মেনিলাসের ভাই আর্গসের রাজা আগামেমন গ্রিক নগর সমূহের রাজাদের আহবান করেন ট্রয়দের বিরুদ্ধে যুদ্ধের জন্য এরপর তিনি ১০০০ টি জাহাজ নিয়ে ট্রয়ের দিকে যাত্রা করেন হেলেনকে ফিরিয়ে আনার জন্য। 

তারা সেখানে পৌছে হেলেনকে উদ্ধার করতে ব্যর্থ হন। পরে তারা কৌশল হিসেবে টানা ১০ বছর (১১৯৪-১১৮৪ খ্রিষ্টপূর্ব পর্যন্ত) ট্রয় নগরী অবরুদ্ধ করে রাখেন। কিন্তু এতেও তারা ব্যার্থ হন। টানা ১০ বছর সফলতা না পাওয়ার পর তারা চিন্তা করেন শক্তি দিয়ে তাদের হারানো যাবে না বুদ্ধি দিয়ে হারাতে হবে। সেই হিসেবে তারা নতুন কৌশল অবলম্বন করেন। তারা বিরাট একটি কাঠের ঘোড়া তৈরি করেন, যার নাম ছিল ট্রোজান হর্স বা ট্রয়ের ঘোড়া। এই বিরাট ঘোড়াটি তৈরি করার পর তার ভিতরে এক দল সৈন্য বাহিনীকে তার ভিতরে লুকিয়ে রাখে এবং ট্রয় নগরের দেয়ালের বাইরে তা ফেলে রেখে চলে যায়। 


এই বিরাট ঘোড়াটি তৈরি করেছিলেন এপিয়াস নামের একজন দক্ষ ছুতার। ঘোড়াটি ফেলে রেখে পলায়নের ভান করে গ্রিকরা জাহাজে করে নিকটবর্তী টেনিডোস দ্বীপে অবস্থান করতে থাকে। গ্রিকরা ট্রয়বাসীদের বোঝায় যে, এই ঘোড়াটি তাদের অপরাজয়ের স্মারক হিসাবে উপহার দেয়া হয়েছে। ট্রয়রা আনন্দ উল্লাস করতে করতে ঘোড়াটিকে নগর দেয়ালের ভিতরে নিয়ে যায় এবং তাদের কৃতিত্ব নিয়ে উৎসব করতে থাকে। কিন্তু তারা বুঝতেই পারিনি যে, ঘোড়ার ভিতরে লুকিয়ে আছে শত্রু  পক্ষ । 

মধ্যরাতে নগরবাসী ঘুমিয়ে পড়লে  সৈন্যরা কাঠের ঘোড়ার খোল থেকে বেরিয়ে এলো এবং নগরের দরজা সমূহ খুলে দিয়ে অন্য গ্রিক সৈন্যদের ভিতরে ঢোকার সুযোগ করে দিল। তারা ভিতরে ঢুকে ট্রয়বাসীদের উপর অর্তকিত হামলা করলো। তারা যাদেরকে সামনে পেল তাদেরকেই হত্যা করলো এবং পুরো ট্রয় নগরীতে আগুন ধরিয়ে দিল। দেখতে দেখতে অপরাজিত ট্রয় নগরী ধ্বংস হয়ে গেল।

ট্রয় নগরীর ঐতিহাসিক কাহিনী অবলম্বনে হোমার ইলিয়াড নামে মহাকাব্য রচনা করেন। ট্রয় নগরীর অপর নাম ছিল ইলিয়াম।

1 টি মন্তব্য:

Blogger দ্বারা পরিচালিত.