Header Ads

সাতক্ষীরার ব্যতিক্রমী মটর সাইকেলের হাট

আপনারা নিশ্চয়ই সবাই হাট সম্পর্কে পরিচিতআমাদের গ্রামাঞ্চলে এমনকি শহরেও রয়েছে হাটের প্রচলনতবে আজকাল গ্রাম্য ও শহরের হাটের মধ্যে তৈরি হয়েছে বিরাট পার্থক্যশহরে প্রতিদিন বাজার বসে এবং জনসাধারন সেখান থেকে বাজার-ঘাট করে থাকে, সেজন্য আজকাল শহরে হাটের প্রচলন তেমনভাবে চোখে পড়ে নাতবে গ্রামে সাধারনত সপ্তাহে এক বা দুই দিন একটি নির্দিষ্ট স্থানে বাজার বসে, যাকে বলা হয় হাট

এই হাট থেকে গ্রামের লোকজন সওদাপাতি করে থাকেসাধারনত হাটে আলু, বেগুন,পটল, শাক-সবজি বা মাছ-মাংস পাওয়া যায়এতো গেল আমাদের চির চেনা মাছ-মাংসের হাটের কথা, তবে কখনও এমন কোন হাটের কথা কি শুনেছেন, যেখানে শুধুমাত্র মটর সাইকেলের হাট বসে? যেখানে লাইনের পর লাইন সারিবদ্ধভাবে মটর সাইকেল সাজানো আছে বিক্রির জন্য, মানুষ আসছেন এই হাটে এবং মটর সাইকেল ক্রয় করে নিয়ে যাচ্ছেন?

হ্যা, এমনই ব্যতিক্রমী মটর সাইকেলের হাট বসে বাংলাদেশের দক্ষিন-পশ্চিমাঞ্চলের সর্বশেষ জেলা সাতক্ষীরায়সাতক্ষীরা শহরের আমতলায় বসে এই মটর সাইকেলের হাটটিএই নির্দিষ্ট স্থানে সপ্তাহে একদিন প্রতি শুক্রবার বসে মটর সাইকেলের হাটঅন্তত শ'খানেক মটর সাইকেল এই হাটে সারি সারি সাজানো থাকে বিক্রয়ের জন্যমটর সাইকেল গুলো সবই থাকে পূর্বে ব্যবহৃতযারা মটর সাইকেল বিক্রয় করতে চান তারা হাট কমিটির সাথে নিবন্ধিত হয়ে এই হাটে তোলেন তাদের মটর সাইকেল। 

অনেকে সদ্য ক্রয় করা মটর সাইকেলও হাটে তোলেন বিক্রয়ের জন্যযারা মটর সাইকেল ক্রয় করতে চান তারা হাটে গিয়ে মটর সাইকেল পছন্দ করার পর টাকা ও রেজিষ্ট্রেশন সমস্যা মিটিয়ে মটর সাইকেলটি নিয়ে যান তার ক্রয় করা জিনিস হিসাবেএই হাটে জনসাধারনের সমাগম ও মটর সাইকেল ক্রয়-বিক্রয় মোটামুটি কম নয়হাটটি সাজানো থাকে চারি ধারে রঙ্গিন সামিয়ানার কাপড় দ্বারাযে কেউ এখানে আসলে বুঝতে পারবে মটর সাইকেলের হাটের চমৎকারিত্ব সম্পর্কে

দক্ষিন-পশ্চিমাঞ্চলে মটর সাইকেলের রয়েছে সবচেয়ে বেশী কদরসেজন্য সাতক্ষীরার এই মটরসাইকেলের হাটটির রয়েছে ভালই জনপ্রিয়তামটর সাইকেল ক্রয় করার দরকার হলে আপনিও একবার চেষ্টা করতে পারেন এই হাট থেকে

1 টি মন্তব্য:

Blogger দ্বারা পরিচালিত.